আজ : মঙ্গলবার | ২রা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৭ই জুলাই, ২০১৮ ইং | ৩রা জিলক্বদ, ১৪৩৯ হিজরী

দ্রুত বিক্রয়োত্তর সেবায় ওয়ালটনের চমক

waltonনিজস্ব প্রতিবেদক : গ্রাহকদের হাতে উচ্চ মানসম্পন্ন প্রযুক্তি পণ্য পৌঁছে দেয়ার পাশাপাশি দ্রুত বিক্রয়োত্তর সেবা প্রদানেও অন্যদের চেয়ে এগিয়ে দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন। গ্রাহক সন্তুষ্টি অর্জনে দ্রুত ও নিখুঁত বিক্রয়োত্তর সেবা প্রদানকে অধিক গুরুত্ব দিয়েছে ওয়ালটন। তাই সার্ভিস সিস্টেমের মান আরো উন্নত ও গতিশীল করতে ইতোমধ্যে নিয়েছে নানান উদ্যোগ। এরই ধারাবাহিকতায় ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে এবার যুক্ত হলো ’এসি উইন্টার সার্ভিস ক্যাম্পেইন-২০১৬’। ওয়ারেন্টির আওতায় দেয়া হচ্ছে ফ্রি সার্ভিস।

আমাদের দেশে শীতে সাধারনত এয়ারকন্ডিশনার বন্ধ থাকে। তাতে জমে অনেক ধুলো ময়লা। পরে গরমের সময় চালু করতে গেলে দেখা দেয় বিভিন্ন সমস্যা। এজন্য গরমের শুরুতে গ্রাহকদের ঘরে ঘরে গিয়ে এয়ার কন্ডিশনারের বিক্রয়োত্তর সেবা দিতেই ওয়ালটনের ক্যাম্পেইন। ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ জানায়, সঠিক বিটিইউ, উচ্চ প্রযুক্তির ব্যবহার এবং বিদ্যুত সাশ্রয়ী হওয়ায় বাজারে ওয়ালটন এসির ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। পাশাপাশি সর্বোচ্চমানের নিশ্চয়তায় ওয়ালটন এসিতে দেয়া হচ্ছে ছয় মাসের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি। মূলত, গ্রাহকদের আস্থার প্রতিদান দিতেই ওয়ালনের এই উদ্যোগ।

গত শনিবার ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের কর্মকর্তারা দেশব্যাপী ’এসি উইন্টার সার্ভিস ক্যাম্পেইন-২০১৬ ’ এর কার্যক্রমর শুরু করেন। রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোডে ঢাকা গ্র্যান্ড হোটেলে সেবা প্রদানের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করা হয়।

কার্যক্রম উদ্বোধন করেন ওয়ালটনের অতিরিক্ত পরিচালক মোঃ নিয়ামুল হক। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের মনিটরিং প্রধান শাহ মোহাম্মদ ইমতিয়াজ, মেকানিক্যাল প্রোডাক্ট সার্ভিস ডেভলপমেন্টের প্রধান মোঃ আনিসুর রহমান মল্লিক, প্রোডাক্ট কো-অর্ডিনেটর (রেফ্রিজারেটর ও এসি) এইচএম শাহরিয়ার রেজা, কুড়িল সার্ভিস সেন্টারের ইনচার্জ মোঃ ওয়াসিম উদ্দিন এবং এসির টেকনিক্যাল মনিটরিং অফিসার মোঃ আব্দুস সাত্তার।

ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট কর্তৃপক্ষ জানায়, এই ক্যাম্পেইনের আওতায় সেবা প্রদানকারীদের গায়ে বিশেষ ধরণের ইউনিফর্ম ও মাথায় ক্যাপ থাকবে। এছাড়াও, কর্মকর্তাদের গলায় একটি বিশেষ আইডি কার্ড ঝুলানো থাকবে। সার্ভিস ম্যানেজমেন্টের পক্ষ থেকে কাঙ্খিত গ্রাহকদের সেবা প্রদানকারীর আইডি নম্বর আগেই জানিয়ে দেয়া হবে।

নিয়ামুল হক বলেন, পণ্য ও সেবায় বৈচিত্র্য ও নতুনত্ব নিয়ে আসতে ওয়ালটন সবসময় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। গ্রাহকদের জন্য এসির বিক্রয়োত্তর সেবাকে আরো সহজতর করতে সারাদেশে এসি উইন্টার সার্ভিস ক্যাম্পেইনের আয়োজন করা হয়েছে। দেশব্যাপী এই ক্যাম্পেইনের আওতায় ওয়ালটন সার্ভিস প্রদানকারীরা গ্রাহকদের ঘরে ঘরে গিয়ে এসির ফ্রি বিক্রয়োত্তর সেবা দিবে। ওয়ালটন এসিতে দুই বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি রয়েছে। এর আওতায় গ্রাহকরা এই ফ্রি বিক্রয়োত্তর সেবাটি পাবেন বলে জানান তিনি।

ওয়ালটন সার্ভিস ম্যানেজমেন্টের মেকানিক্যাল প্রোডাক্ট ডেভলপমেন্টের প্রধান আনিসুর রহমান মল্লিক জানান, গ্রাহকরা শীত আসলে কয়েকমাস এসি বন্ধ রাখেন। পরবর্তীতে গরম পড়া শুরু হলে আবার এসি চালু করেন। লম্বা বিরতি দিয়ে এসি চালু করতে গেলে সাধারণত কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। এক্ষেত্রে, এসির সিডিউল সার্ভিসিং এর প্রয়োজন পড়ে।

তিনি আরো জানান, আমাদের দেশের বেশিরভাগ কোম্পানিই এই ধরনের সার্ভিস প্রদানের বিনিময়ে গ্রাহকদের নিকট থেকে চার্জ নিয়ে থাকে। কিন্তু ওয়ালটন ফ্রি সিডিউল সার্ভিস প্রদানের জন্য দেশব্যাপী এসি উইন্টার সার্ভিস ক্যাম্পেইন কার্যক্রম শুরু করেছে। এর আওতায় ওয়ালটন এসি ব্যবহারকারীদের বাসায় গিয়ে সার্ভিস প্রদান করা হবে। এজন্য, কোনো প্রকারের চার্জ নেয়া হবে না।

সার্ভিস ম্যানেজমেন্টের মনিটরিং প্রধান শাহ মোহাম্মদ ইমতিয়াজ বলেন, বর্তমান প্রতিযোগিতাপূর্ণ বাজারে গ্রাহক সন্তুষ্টি অর্জন করতে হলে মানসম্পন্ন পণ্য তৈরি করাই যথেষ্ট নয়। গ্রাহকদের জন্য দ্রুত, নিখুঁত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবাও নিশ্চিত করতে হয়। আর এই বিষয়টিকে উপলব্ধি করেই ওয়ালটন সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা প্রদানে অধিক জোর দিয়েছে।

উল্লেখ্য, দেশের ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল খাতে একমাত্র ওয়ালটনেরই রয়েছে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। গ্রাহকদের দোরগোঁড়ায় দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা পৌঁছে দিতে সার্ভিস সিস্টেমে যুক্ত করা হয়েছে বেশকিছু নতুনত্ব। এরমধ্যে রয়েছে সার্ভিস নেটওয়ার্ক বিস্তৃতকরণ, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও যন্ত্রপাতি দিতে সার্ভিস পয়েন্টগুলোকে আধুনিকিকরন, অসংখ্য প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ান নিয়োগ, নিয়মিত ভিডিও কনফারেন্স ও টিউটোরিয়ালের মাধ্যমে প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ানদের দক্ষতা বৃদ্ধি করা ইত্যাদি।
গ্রাহকদের হাতের কাছে বিক্রয়োত্তর সেবা পৌঁছে দিতে সারা দেশে চালু রয়েছে ৬০ টি সার্ভিস পয়েন্ট। রয়েছে হট লাইন। গ্রাহকরা ১৬২৬৭ এ কল করে পণ্য সম্পর্কে যেকোনো সমস্যা জানাতে পারছেন। এইসব কাজে যুক্ত রয়েছেন ১৫শ’র বেশি দক্ষ প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ