আজ : বৃহস্পতিবার | ৭ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২১শে জুন, ২০১৮ ইং | ৭ই শাওয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

‘বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলুন’

dsfssssএডিটর ডেস্ক : বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে জনপ্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দুঃশাসন থেকে জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে ফেরাতে পাখির মতো গুলি করে মানুষ হত্যা করা হচ্ছে। এভাবে চলতে পারে না। এই অভিযানকে আমরা শুরু থেকেই উদ্দেশ্যমূলক বলেছি। এর পেছনে ভিন্ন কারণ আছে। রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিল এর টার্গেট, সে উদ্দেশ্যে কক্সবাজারের কমিশনার একরাম সাহেবকে হত্যা করা হলো। এলাকার সবাই বলছেন তিনি ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলেন না। প্রকাশিত অডিও প্রমাণ করে যে, অভিযান সরকার ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করছে। এভাবে বিচারবহির্ভূত হত্যা চলতে পারে না। এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

শনিবার সন্ধ্যায় ধানমন্ডির ফখরুদ্দিন কনভেশন সেন্টারে রংপুর মেডিকেল কলেজের জাতীয়তাবাদী প্রাক্তন ছাত্রকল্যাণ পরিষদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিল ও অলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ফখরুল বলেন, ট্রাফিক সিস্টেম থেকে শুরু করে দেশের সবকিছুতে অচল অবস্থা। সরকার গণতন্ত্র ধ্বংস করে দিয়েছে। সুশাসন বলতে কিছু নেই। যেকারণে জনজীবন অতিষ্ঠ আজ। কেউ কোথাও বিচার পায় না। না আদালতে, না অন্য কোথাও।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, এই অবস্থা চলতে দেওয়া যায় না। সমগ্র জাতিকে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। তার জন্য জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করতে হবে। সকল স্তরের জনগণ নিয়ে গণআন্দোলনের মাধ্যমে এ দানবীয় সরকারকে সরাতে হবে। কেউ কোথাও বিচার পান না দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমি অনেক ব্যবসায়ীকে জানি, যারা শুধুমাত্র ভিন্নমত বা ভিন্নমতাবলম্বী বলে তাদের কারখানায় গ্যাস ও বিদ্যুতের সংযোগ পান না। মাসের পর মাস, বছরের পর বছর তাদের কারখানা পড়ে আছে। অনেক বাড়ির কাজ শেষ কিন্তু বিদ্যুৎ সংযোগের কারণে তারা ভাড়া দিতে পারছেন না। এটা হচ্ছে বর্তমান দেশের খণ্ডিত চিত্র।’

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে হাইকোর্ট জামিন দিয়েছেন অথচ কৌশল অবলম্বন করে সেটি স্থগিত করিয়ে মাসের পর মাস খালেদা জিয়াকে কারারুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। দেশের এ অবস্থা চলতে দেওয়া যায় না। এটা শুধু বিএনপি বা খালেদা জিয়ার একার সমস্যা নয়। এ সমস্যা আজ সমগ্র জাতির। তাই আজ সমগ্র জাতিকে রুখে দাঁড়াতে হবে।

আগামী বাজেট নিয়ে অর্থমন্ত্রীর সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, এবারও অর্থমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন বিশাল বড় একটি বাজেট তিনি নিয়ে আসবেন। তাই আমাদের ওপর কত ট্যাক্সের বোঝা আরোপ হবে। কিভাবে ট্যাক্সের বোঝা আরোপ হবে। সেগুলো নিয়ে আমরা প্রতিনিয়ত উদ্বিগ্ন হতে থাকি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ