আজ : শুক্রবার | ১লা পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং | ২৭শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

কক্সবাজারে র‌্যাবের সাথে বন্ধুক যুদ্ধে ধর্ষক সেলিম নিহত

17.10.17কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজার বিমানবন্দর গেইটের সামনে নতুন ফিশারিপাড়া (মগচিতাপাড়া) এলাকায় গত ২৩ আগস্ট   এক প্রতিবন্ধির তিন বছর বয়সী শিশুকন্যাকে ধর্ষণ করে একই এলাকার ইউনুছের পুত্র সেলিম (২২)। ঐ দিন সন্ধ্যায় তিন বছর বয়সী শিশুকন্যাটি ঘর থেকে বের হলে তাকে ফুসলিয়ে পাশের একটি খালি বাসায় নিয়ে যায় ধর্ষক সেলিম। সেখানে শিশুকন্যার চিৎকারে লোকজন এগিয়ে গেলে সেলিম পালিয়ে যায়। পরে লোকজন রক্তাক্ত অবস্থায় শিশুটিকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনার পর ধর্ষক ভিকটিমের পরিবারকে বিষয়টি ধামাচাপার জন্য ভয়ভীতিসহ প্রকাশ্যে হুমকি দেয়। উক্ত ঘটনায় গত ২৭ আগস্ট ধর্ষক সেলিমের বিরুদ্ধে কক্সবাজর সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ২০০০ (সংশোধনী ২০০৩), ধারাঃ ৯(১) মোতাবেক একটি ধর্ষণ মামলা রুজু করা হয় (মামলা নং-৯৫/৮৭৮। এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এই চাঞ্চল্যকর ঘটনার ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং ব্যাপক গোয়েন্দা নজরদারী অব্যাহত রাখে।

ফলে আজ ১৭ অক্টোবর মঙ্গলবার গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ঐ ধর্ষক সেলিম ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা কক্সবাজার জেলার  খুরুশকুল এলাকায় অবস্থান কালে রাত্র ১.৪৫ টার সময় স্কোয়াড্রন লীডার শাফায়াত জামিল ফাহিম ও মেজর মোঃ রুহুল আমিন এর নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করলে সন্ত্রাসীরা র‌্যাবকে লক্ষ করে এলোপাথারিভাবে গুলি বর্ষন শুরু করে।

জানমাল রক্ষার্থে র‌্যাব ও পাল্টা গুলি বর্ষণ করে। গুলি বিনিময়ের এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলে একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাৎক্ষণিকভাবে আহত ব্যক্তিকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ০১টি ৭.৬৫ মিঃ মিঃ বিদেশী পিস্তল, ০১টি ওয়ানশুটার গান, ০১টি ম্যাগাজিন, ০৭ রাউন্ড গুলি এবং ০৩ রাউন্ড খালি খোসা উদ্ধার করে।

পরবর্তীতে স্থানীয়দের মাধ্যমে জানা যায় যে, নিহত ব্যক্তি সেলিম (২২), পিতা-মোঃ ইউনুছ, গ্রাম-কুতুবজোম (মেহেদী পাড়া), থানা-মহেষখালী, জেলা-কক্সবাজার, বর্তমান ঠিকানাঃ নতুন ফিশারি ঘাট (মগচিতাপাড়া), সদর, কক্সবাজার। উল্লেখ্য যে, উক্ত ঘটনায় ০২ জন র‌্যাব সদস্য আহত হলে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়। নিহত ব্যক্তি, উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও অন্যান্য আলামত পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে জব্দ করা হয় বলে  মিডিয়া অফিসার মিমতানুর রহমানসংবাদ মাধ্যম কে এক প্রেসবার্তায় জানিয়েছেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ