আজ : রবিবার | ৮ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ | ২১শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং | ৪ঠা জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

টিআইবি’র ‘অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা পুরস্কার ২০১৭’ পেলেন ৯ জন

IMG_20171207_184759-660x330এডিটর ডেস্ক : অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার জন্য ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) পুরস্কৃত করেছে ৯ সাংবাদিককে। আজ বৃহস্পতিবার টিআইবির মেঘমালা কনফারেন্স রুমে এক বর্নাঢ্য আয়োজনে ‘অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা পুরস্কার ২০১৭’ এ ৯ জনের হাতে তুলে দেয়া হয়।

পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন, প্রিন্ট মিডিয়া স্থানীয় ক্যাটাগরিতে দৈনিক পূর্বাচলের খুলনার স্টাফ রিপোর্টার এইচ এম আলাউদ্দিন, জাতীয় ক্যাটাগরিতে প্রথম আলো পত্রিকার সাভারের স্টাফ রিপোর্টার অরূপ রায়। ইলেকট্রনিক মিডিয়া ক্যাটাগরিতে মাছরাঙা টেলিভিশনের সাংবাদিক বদরুদ্দোজা বাবু ও ক্যামেরা পারসন হিসেবে একই টেলিভিশনের সিনিয়র ক্যামেরা পারসন মেহেদী হাসান সোহাগ পুরস্কার পেয়েছেন। ইলেকট্রনিক মিডিয়া প্রামাণ্য অনুষ্ঠান ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার মো: সবুজ মাহমুদ, ক্যামেরা পারসন রাকিবুল হাসান ও গোলাম কিবরিয়া, ক্যামেরা পারসন মহসীন মুকুল, কাজী মোহাম্মাদ ইসমাইল, গোলাম কিবরিয়া।

একই ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন যমুনা টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার (বর্তমানে চ্যানেল ২৪-এ কর্মরত) মো: জাহিদ মামর ইসলাম সাদ ও যমুনা টেলিভিশনের ক্যামেরা পারসন তানভীর মিজান।

বিজয়ী সাংবাদিকদের পুরস্কার হিসেবে এক লাখ টাকা, ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র দেয়া হয়। পুরস্কারের জন্য বিবেচিত টিভি প্রতিবেদনে ক্যামেরা পারসনের বিশেষ ভূমিকার জন্য তাদের পুরস্কার হিসেবে ৫০ হাজার টাকা, ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র দেয়া হয়।

২০১৭ সালের অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা প্রতিযোগিতার জুড়িবোর্ডে ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হেলেনা ফেরদৌস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস, সাপ্তাহিকের সম্পাদক গোলাম মর্তুজা ও সাংবাদিক জুলফিকার মালিক।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী। তিনি বলেন, ‘যে দেশে দুর্নীতি থাকে সে দেশ থেকে কখনো দরিদ্রতা যাবে না। দুর্নীতি সরাতে হলে মিডিয়াকে কাজ করার সুযোগ দিতে হবে।’

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে টিআইবির ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ও সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার ড. এ টি এম শামসুল হুদা বলেন, বর্তমান সমাজে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা রিস্কবিহীন নয়। এখানে ঠিক করতে হবে কিভাবে সারভাইব করা যায় এবং তার মধ্য থেকেই সমাজের অসঙ্গতি ও দুর্নীতি তুলে এনে দেশের সেবা করা যায়। কারণ অনুসন্ধানী সাংবাদিকতায় দেশের, সমাজের উপকার হয়। আরো বেশি বেশি অনুসন্ধানী সাংবাদিক ভালো ভালো প্রতিবেদন তৈরিতে কাজ করবে, আর এতে উৎসাহ হিসেবে কাজ করবে টিআইবির এ পুরস্কার। অনুষ্ঠানে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামানসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ